বিটিআরসি তথ্য বেরিয়ে আসে অটোমোবাইল কোম্পানির গোপন তথ্য

বিটিআরসি তথ্য বেরিয়ে আসে অটোমোবাইল কোম্পানির গোপন তথ্য

 বিটিআরসি তথ্য বেরিয়ে আসে অটোমোবাইল কোম্পানির গোপন তথ্য

অটোমোবাইল প্রশিক্ষণ,অটোমোবাইল ইঞ্জিনিয়ারিং,automobile,automobile club of south,automobile magazine,first automobile,american automobile association,genesis automobile,automobile club,automobile bill of sale,tucker automobile,national automobile museu,state farm mutual automobile insurance company    ,automobile history,auburn cord duesenberg automobile museum    ,automobile club of america,automobile engineering,automobile industry,national automobile dealers association,automobile insurance,
অটোমোবাইল কোম্পানি 

বাংলাদেশ টেলিযোগাযোদুর্নীতি গ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) এর অনুসন্ধানে বেরিয়ে আসে গ্রাহকের অজান্তেই মোবাইল থেকে টাকা কেটে নিচ্ছে কয় একটি  কোম্পানি।তারা মানুষদের ওয়েলকাম টিউন ছাড়াও নিউজ অ্যালার্ট, ধর্মবিষয়ক অ্যালার্ট, গান, ভিডিও, মুঠোফোনের গেম ইত্যাদি চালু করে দিয়ে গ্রাহকদের অজান্তে কেটে নিচ্ছে টাকা।এই বিষয়ে গ্রাহকরা অভিযোগ করলেও কোন ফল মিলে নাই 


এই অভিযোগের বিত্তকরে গত মঙ্গলবার বাংগালিঙ্কের গ্রাহকদের টেলিকমিউনিকেশন ভ্যালু অ্যাডেড সার্ভিস (টিভ্যাস) বন্ধ এবং রবি আজিয়াটা বন্ধের জন্য চিঠি দিয়েছেন বিটিআরসি।এছাড়া আরো চারটি টিভ্যাস সেবাদাতাকেও সেবা বন্ধ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। 


দেশের চারটি মোবাইল অপারেটরের গ্রাহকদের ওয়েলকাম টিউন ছাড়াও নিউজ অ্যালার্ট, ধর্মবিষয়ক অ্যালার্ট, গান, ভিডিও, গেম ইত্যাদি সেবা দিয়ে থাকে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান। এগুলোকে বলা হয় টেলিকমিউনিকেশন ভ্যালু অ্যাডেড সার্ভিস।


বিটিআরসি এর তথ্য মতে তারা দুই টি প্রতিষ্টানের উপর ছয় মাস ধরে নজর রাখে।এবং ঐ দুইটি প্রতিষ্টান হল পার্পেল ডিজিট কমিউনিকেশন লিমিটে ও অভি কথাচিত্র লিমিটেড।শুধু মাত্র ৭৬ হাজার ৮৬০ জন গ্রাহক ছিল পার্পেল ডিজিট কমিউনিকেশনের।


বিভিন্ন জন থেকে টাকা কেটে নেওয়া গ্রাহকদের নিটিআরসি সিস্টেম অ্যান্ড সার্ভিসেস বিভাগের কর্মকর্তারা কল করেন। তাদের মধ্যে থেকে জানা যায় ৪৬  জন গ্রহকদের কোন রকম না জানিয়ে তাদের সেবাটি চালু করে দিয়ে টাকা কেটে নিয়েছে। এছাড়া আরো ১৭ জন জানিয়েছেন তােদর থেকে কোম্পানি অনুমতি নিয়ে সেবা টি চালু করেছিল।আবার তাদের মধ্যে ২৬ জন গ্রাহক কল ধরেন নাই কল দেওয়ার পরেও।এরমধ্যে ১১ জনের মোবাইল বন্ধ পাওয়া যায় তার জন্য তাদের মতামত নেওয়া কোন ভাবে সম্ভব হয়নি।বিটিআরসি জানান এই সব গ্রাহকদের থেকে ইকরা নামের একটি সেবা দেওয়ার নামে ৩০ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয়।এই সেবা দাতা কোম্পানি হল পার্পেল ডিজিট লিমিটেড।


কোম্পানিরা লক্ষ্য করে তাদের মেবাইল বন্ধ থাকে তাদের টিভ্যাস নামের একটি সেবা চালু করে দে এবং তাদের থেকে টাকা হাতিয়ে নেয়।বিটিআরসি জানান, এমন কিছু মানুষ আছে যারা মেবাইলের এস এম এস পরতে জানে না।সাধারণ টেলিযোগাযোগ কোম্পানি গুলো তাদেরকে টার্গেট করে থাকে। তাদের অটো সেবা চালু করে দিয়ে টাকা নিয়ে যাওয়া হয়।দেশে সেবা নামে যারা লুটপাট করতেছে যাদের রুখে দিতে বিটিআরসি কাজ করতেছে বলে জানান।


এছাড়া বিটিআরসি গত ১১ সেপ্টেম্বরের সভায় পার্পল ডিজিট এবং অভি কথাচিত্রের সেবা বন্ধের জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়। এর পাশাপাশি এসব সেবা চালুর ক্ষেত্রে দেশের চারটি মোবাইল অপারেটরকে ওয়ান টাইম পাসওয়ার্ড চালুর নির্দেশ দিয়েছে বিটিআরসি।পাসওয়ার্ড এর মধ্যে গ্রাহকদের অনুমতি ছাড়া কোন সেবা চালু করা যাবে না। এই লক্ষ্য কোম্পানিদের এটি নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। 


বিটিআরসির খাতায় যুক্ত হয়েছে অভি কথাচিত্র লিমিটেড। তাদের গ্রাহক সংখ্যা হলো তিন লক্ষ ৫৮ হাজার ৭২২ জন।এই প্রতিষ্টানের টিভ্যাস সেবা দিয়ে থাকেন ঢালিউড ২৪ নিউজ অ্যালার্ট, ও ঝালমুড়ি ওয়েব পোর্টাল।বিটিআরসির কর্মকর্তারা তাদের গ্রাহকদের মধ্যে ৯০ জনকে কল করেন।তাদের মধ্যে ৩০ জনের মেবাইল মধ্যে পাওয়া যায়। তাই তাদের থেকে কোন মতামত নেওয়া যায় নাই।এছাড়া ৯০ জনের মধ্যে আরো ১৭ জন কল ধরেন নাই এবং ৪২ জনের সাথে কথা হয় তাদের।গ্রাহরা জানান তাদের দুইটি সেবা চালু করে দেওয়া হয়েছে অটো কিন্তু তােদর থেকে কোন রকম সম্মতি নেওয়া হয়নি।


এই বছরের আগস্ট মাসেই ৪৩ লক্ষ টাকা আর্নিং করেছেন অভি কথাচিত্র ঢালিউড ২৪ নিউজ অ্যালার্ট সেবাটির মাধ্যমে।তাদের আয় কৃত টাকা থেকে ২৬ লক্ষ টাকা ভাগ পেয়েছে 

মুঠোফোন অপারেটরগুলো।বিষয়টি নিশ্চিত করেন বিটিআরসি।


রবি ও বাংলালিংকের সকল টিভ্যাস বন্ধ করার চিঠিতে বিটিআরসি বলেছে, অপারেটরের সহযোগিতা ছাড়া কোন সেবা চালু বা বন্ধ হয় না।এবং  এর সাথে যেসব গ্রাহক মোবাইলের মেসেজ পড়েন না বা পড়তে পারেন না তাদের তালিকা উক্ত টুইটি প্রতিষ্ঠানের পক্ষে জানা কেন ভাবে সম্ভব নয়।কারণ টিভ্যাসের সার্ভিস ডেলিভারি প্ল্যাটফর্মও অপারেটরের নিয়ন্ত্রণাধীন।


বিটিআরসি দেওয়া চিঠি নিয়ে বলেন,রবি ও বাংলালিংক কোম্পানিকে চিঠি পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। এবং তাদের গ্রাহকদের দেওয়া টিভ্যাস সেবা বন্ধ করতে।কারণ গ্রাহকদের অনুমতি ছাড়া তাদের সেবা চালু করা হচ্ছে। অনেক গ্রাহকরা আছে এস এম এস পরে না এস এম এস পড়তে জানে না।এদের তালিকা টিভ্যাস প্রতিষ্ঠানের পক্ষে জানা কোন ভাবে সম্ভব নয়। টিভ্যাসের সার্ভিস ডেলিভারি প্ল্যাটফর্মও অপারেটরের নিয়ন্ত্রণাধীন।


বিটিআরসি টুইটি কোম্পানিকে নোটিস দিয়ে এবং সাথে পরবর্তী নির্দেশনা না পাওয়া পর্যন্তু রবি ও বাংলালিংকের নেটওয়ার্ক ব্যবহার করে নিবন্ধিত প্রতিষ্ঠানের সব টিভ্যাস বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে। 


Post a Comment

নবীনতর পূর্বতন